কশাঘাতের চিকিৎসা

প্রকাশিত ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | আপডেট: ১২ আগস্ট, ২০২০

যে সমস্যাসমূহ দেখা দিলে একজন চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হবে বা হাসপাতালের ইমার্জেন্সী রুমে নিয়ে যেতে হবে

১। আঘাত বা দুর্ঘটনার পর ব্যথা হলে।

২। ঘাড়ের ব্যথা বাহু ও পা বরাবর ছড়িয়ে পড়লে।

৩। মাথাব্যথা, অসাড়তা বা দুর্বলতার সঙ্গে ব্যথা থাকলে।

পেশির পীড়ন বা ব্যথা দূর করুন

১। আঘাতের জায়গায় শুষ্ক বা আর্দ্র ভাপ প্রয়োগ করুন

ব্যথার চিকিৎসা করুন

১। ব্যথানাশক ওষধ যেমন Acetaminophen বা Ibuprofen দেওয়া যেতে পারে

অহেতুক ঘাড়ের টান ঠেকান

১। ব্যক্তি যখন শায়িত অবস্থায় থাকে তখন তার মাথা ও ঘাড় এর সন্ধি স্থাপনের জন্য ঘাড়ের (পিছন দিক) নিচে একটা ছোট বালিশ রাখুন

ফলো আপ

১। চিকিৎসার মধ্যে অন্তর্ভুক্ত হতে পারে cervical collar, muscle relaxants, exercise বা physical therapy।

এই লেখাটি শুধুমাত্র তথ্যের জন্য, কিন্তু চিকিৎসা সংক্রান্ত অবস্থা নিরুপন বা চিকিসা গ্রহণের জন্য ব্যবহার করা উচিত নয়।

মোঃ ফারুক হোসাইন