ব্লাড সেল ডিসঅর্ডার

প্রকাশিত ১৪ মে, ২০১৮ | আপডেট: ৬ ডিসেম্বর, ২০২০

ব্লাড সেল ডিসঅর্ডার এমন একটি শারীরিক সমস্যা যাতে আপনার লোহিত রক্তকণিকায়, শ্বেত রক্তকণিকায় কিংবা প্লেইটলেটে সমস্যা রয়েছে। সেলের এই তিনটি ধরণ বৌন ম্যারৌতে (অস্থি মজ্জা) গঠিত হয়। লোহিত রক্তকণিকা শরীরের অঙ্গ ও টিস্যুতে অক্সিজেন বহন করে নিয়ে যায়। শ্বেত রক্তকণিকা শরীরকে সংক্রমণের বিরুদ্ধে কাজ করতে সাহায্য করে। প্লেইটলেট শরীরের রক্ত জমাট বাঁধায় সাহায্য করে।

ব্লাড সেল ডিসঅর্ডার এই ধরনের এক বা একাধিক রক্ত কোষের গঠন এবং কার্যকারিতা হ্রাস করে।

ব্লাড সেল ডিসঅর্ডারের কারণসমূহ

ব্লাড সেল ডিসঅর্ডার রোগের কারণে হতে পারে। রোগগুলো বংশগত ও অটোইমিউন ডিজীজের কারনেও হতে পারে। 

ব্লাড সেল ডিসঅর্ডারের  লক্ষণসমূহ

লক্ষণাদি ব্লাড সেল ডিসঅর্ডার এর ধরনের উপর ভিত্তি করে ভিন্ন হবে।

লোহিত রক্তকণিকা রোগের কমন লক্ষণাদি

১। দ্রুত হার্টবিট

২। শ্বাসকষ্ট

৩। ক্লান্তি

৪। মাংসপেশীর দূর্বলতা

৫। মনোযোগের অসুবিধা।

পেডিয়্যাট্রিক হোয়াইট ব্লাড সেল ডিসঅর্ডার বা শ্বেত রক্তকণিকার রোগের কমন লক্ষণসমূহ

১। ক্লান্তি।

২। দীর্ঘ সময় ধরে সংক্রমণ।

৩। অস্বাভাবিক ওজন হ্রাস।

৪। অসুস্থতা।

প্লেইটলেট ডিসঅর্ডারের কমন লক্ষণাদি

১। কাটা অংশ বা ক্ষত সহজেই আরোগ্য হয় না বা আরোগ্য হতে সময় লাগে।

২। জখমের পর বা কেটে যাওয়ার পর রক্ত জমাট বাঁধে না।

৩। নাক দিয়ে রক্ত পড়ে।

৪। মাড়ি থেকে রক্তপাত হয়।

৫। ত্বকে সহজেই চোট লাগে।

ব্লাড সেল ডিসঅর্ডারের চিকিৎসা

ট্রিটমেন্ট প্লেন অসুস্থতার পর্যায়, বয়স ও সামগ্রিক স্বাস্থ্য অবস্থার উপর নির্ভর করে। চিকিৎসার মধ্যে রয়েছে মেডিকেইশন ও সার্জারী। আপনার চিকিৎসক সম্ভবত ব্লাড সেল ডিসঅর্ডারে সাহায্যের জন্য একটা কমবাইন্ড ট্রিটমেন্ট ব্যবহার করতে পারেন।

সার্জারীর মধ্যে রয়েছে Bone marrow transplants যা ক্ষতিগ্রস্ত ম্যারৌ প্রতিস্থাপন করতে পারে।

Blood transfusionক্ষতিগ্রস্ত ব্লাড সেল প্রতিস্থাপনে সাহায্যের জন্য আরেকটি অপশন।

এই লেখাটি শুধুমাত্র তথ্যের জন্য, কিন্তু চিকিৎসা সংক্রান্ত অবস্থা নিরুপন বা চিকিসা গ্রহণের জন্য ব্যবহার করা উচিত নয়।

মোঃ ফারুক হোসাই