উকুন নিয়ে সমস্যা ও উকুনের চিকিৎসা

প্রকাশিত ৯ মে, ২০১৮ | আপডেট: ৭ আগস্ট, ২০২০

উকুন একটি পরজীবী যা মানুষের শরীরে বাস করে ও মানুষের রক্ত খেয়ে বেঁচে থাকে। মানুষ ছাড়াও অন্যান্য স্তন্যপায়ীদের মধ্যে এটি বাস করতে পারে। এরা পোষক দেহে বাস করে ও সেখানে ডিম পাড়ে, পরে ডিম থেকে বাচ্চা বের হয় ও পরিণত হয়ে ওঠে। আক্রান্ত ব্যক্তি অস্বস্তিকর পরিস্থিতিতে পড়ে, অনেক সময় তীব্র চুলকানির সৃষ্টি হয়। ডিম থেকে বাচ্চা ফুটার পর দ্রুত পরিণত হয়ে তা থেকে আবার যখন উকুনের জন্ম হয়, এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আপনার মাথার মধ্যে দ্রুত উকুন ছড়িয়ে পড়ে। ডিম থেকে উকুন বড় হতে ৭-১০ দিন সময় লাগে।

উকুনের চিকিৎসা

বেশ কিছু চিকিৎসা রয়েছে যা কার্যকরভাবে মাথার উকুনের আক্রমণ থেকে আপনাকে মুক্ত করতে পারে। চিকিৎসার মধ্যে রয়েছে-

ক) over-the-counter products

খ) ন্যাচারাল রিমিডী

গ) প্রেসক্রিপশন মেডিকেশন

পুরোপুরিভাবে উকুন থেকে পরিত্রাণের ৩টি ধাপ রয়েছে

কি ধরণের উকুন দ্বারা আপনি আক্রান্ত এটা কোন বিষয় নয়, চিকিৎসা পদ্ধতি মূলত একই।

ক) মাথায় থাকা উকুন ধ্বংস করা

খ) উকুনের ডিম ধ্বংস করা বা দূর করা

গ) আক্রান্ত যে কোন স্থান সংক্রমণমুক্ত করা

মনে রাখবেন বাজারে পাওয়া উকুননাশক প্রোডাক্ট ব্যবহার না করাই উত্তম, কারণ এটি চুলের জন্য ও স্বাস্থ্যের জন্যে বেশ ক্ষতিকর হতে পারে।

উকুনের জন্য সবচেয়ে কমন ট্রিটমেন্ট প্রোডাক্ট এঁর মধ্যে রয়েছে pediculicide shampoo। আক্রান্ত স্থানে এই ট্রিটমেন্ট প্রয়োগের পর ২ দিন পর্যন্ত মাথার চুল ধৌত করা উচিত হবে না।

১) ইসেনশল অয়েল, যেমনটি ট্রি অয়েল, ল্যাভেন্ডার অয়েল, ইউক্যালিপটাস, নীম অয়েল ইত্যাদি উকুন দূর করতে বেশ কার্যকরী বলে মনে করা হয়। কিছু গবেষণায় দেখা গেছে যেউকুনের চিকিৎসায়essential oils এর সম্ভবত একটা ভূমিকা থাকতে পারে। ভেজিটেবল অয়েলের সঙ্গে কয়েক ফোঁটা ইসেনশল অয়েল মিশিয়ে মাথার ত্বকে ও চুলে লাগান। এভাবে ঘণ্টা খানিক রাখার পর শ্যাম্পু করে চুলভালো করে ধুয়ে ফেলুন।

২) ভিনেগারের সঙ্গে অলিভ অয়েল মিশিয়ে মিশ্রন তৈরি করুণ ও সাথে পানি সংযোজিত করে চুলে লাগান।

৩)আপনার মাথার চুল পানি দিয়ে ভিজিয়ে কন্ডিশনার লাগানোর পর একটা পরিষ্কার চিরুনি দিয়ে মাথার ত্বক থেকে চুলের আগা পর্যন্ত আঁচড়ান। এভাবে কয়েকবার চুল আঁচড়ানোর ফলে মাথার উকুন অনেকখানি দূর হবে।

এই লেখাটি শুধুমাত্র তথ্যের জন্য, কিন্তু চিকিৎসা সংক্রান্ত অবস্থা নিরুপন বা চিকিসা গ্রহণের জন্য ব্যবহার করা উচিত নয়।

মোঃ ফারুক হোসাই