সুষম খাবারের গুরুত্ব

প্রকাশিত ১০ মার্চ, ২০১৮ | আপডেট: ১২ আগস্ট, ২০২০

ঠিকভাবে দেহকোষ কাজ করার জন্য শরীরের পুষ্টিকর খাবারের ভূমিকা অপরিসীম। আর সেই পুষ্টিকর খাবার আমরা পেয়ে থাকি একটা সুষম খাবার থেকে। মানব শরীর হাঁটার জন্য, চিন্তা করার জন্য, শ্বাসক্রিয়া চালানোর জন্য, ও অন্যান্য গুরুত্বপুর্ণ কাজের জন্য খাবার থেকে ক্যালোরি ব্যবহার করে। সুষম খাবার থেকেই এই ক্যালোরি আসে।

সুষম খাবার কেন এতো গুরুত্ব

একটা সুষম খাবার গুরুত্বপুর্ণ এই কারণে যে আপনার অঙ্গ ও টিস্যুর কার্যকরভাবে কাজ করার জন্য সঠিক পুষ্টির দরকার। উৎকৃষ্ট পুষ্টি ব্যতীত, আপনার শরীর সংক্রমণ,  ক্লান্তি ও রোগাদির দিকে ঝোকার অধিক সম্ভাবনা থাকে। অস্বাস্থ্যকর ও পুষ্টিহীন খাবার খায় এমন শিশুরা বৃদ্ধি বা শারীরিক বিকাশমুলক সমস্যা ও পুওর অ্যাকাডেমিক পারফর্মান্স এর দিকে ধাবিত হয়।

United States Department of Agriculture (USDA)-র তথ্যানুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর শীর্ষ ১০টি প্রধান কারণসমুহের মধ্যে চারটি সরাসরি খাবার দ্বারা প্রভাবিত হয়ে থাকে। 

এগুলো হলঃ

১। হার্ট ডিজীজ।

২। ক্যানসার।

৩। স্ট্রোক।

৪। ডায়াবেটিস।

সুষম খাবার কিভাবে পাওয়া যায়

সুষম খাবারের মধ্যে থাকবে কম অপ্রয়োজনীয় ফ্যাট ও সুগারজাতীয় খাবার কিন্তু উচ্চ পরিমানের ভিটামিন, মিনারাল, ও অন্যান্য পুষ্টিকর খাদ্য সঠিক পরিমাণে থাকবে।

নিম্নোক্ত খাদ্য গ্রুপ একটা সুষম খাবারের অত্যাবশ্যকীয় অংশ

ফ্রুটস-

পুষ্টির একটা বৃহৎ উৎস হওয়ার পাশাপাশি এগুলো সুস্বাদু হালকা বা জলখাবার তৈরি করে। এক এক সীজনে এক এক ফল পাওয়া যায়। আপনার এলাকায় যেসব ফল সীজনে পাওয়া যায় তা বেছে নিন। তবে এগুলো টাটকা হতে হবে কারণ তা সবচেয়ে বেশি পুষ্টি যোগাবে।

শাক সবজী-

শাকসবজী অত্যাবশ্যকীয় ভিটামিন ও মিনারালের প্রাথমিক উৎস। সবুজ সবজী সবচেয়ে বেশি পুষ্টিকর পদার্থ ধারণ করে এবং প্রতি খাবারে খাওয়া যায়। বেশ কিছু সংখ্যক শাক-সবজী পরিপুর্ণ পুষ্টিকর পদার্থ ধারণে আপনাকে সাহায্য করবে।

নিচে কিছু শাকসবজীর নাম উল্লেখ করা হল-

১। স্পিনাক

২। কালি

৩। গ্রীণ বীন

৪। ব্রোকলি

৫। কলার গ্রীণ

৬। সুইচ চার্ড

প্রোটিন-

মীট ও বীন প্রোটিনের প্রাথমিক উৎস, যা যথাযথ পেশি ও মস্তিষ্ক বিকাশের জন্য অত্যাবশ্যক। চর্বিহীন বা কম চর্বিযুক্ত মাংস যেমন চিকেন, ফিশ ইত্যাদি হচ্ছে সর্বোৎকৃষ্ট অপশন।

প্রোটিনের অন্যান্য উৎকৃষ্ট উৎস যা আরো অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা, ফাইবার, ও অন্যান্য পুষ্টিকর পদার্থ ধারণ করে। যেমন- লেন্টিল, বীন, পী, আমন্ড, ওয়ালনাট, সানফ্লাউয়ার ইত্যাদি।

এই লেখাটি শুধুমাত্র তথ্যের জন্য।

মোঃ ফারুক হোসাইন