পার্টি সাজ যেমন হওয়া উচিত

প্রকাশিত ১৪ জানুয়ারী, ২০১৯ | আপডেট: ২ জুলাই, ২০২০

বছরের বিভিন্ন সময় বিভিন্ন পার্টি হয়ে থাকে, এছাড়া নিজেদের ধর্মের অনুষ্ঠান, বিয়ে, বৈশাখ, নতুন বছর, স্কুল-কলেজের অনুষ্ঠান তো লেগেই থাকে। এসব অনুষ্ঠানে পরিপাটি বা সাজগোজ করতেই হয়। বন্ধুরা দল বেঁধে ছবি তোলা, খেতে যাওয়া, আড্ডা দেওয়া ইত্যাদি করা হয়। এখন আপনি যদি পার্টি অনুযায়ী না যান তাহলে কিন্তু দেখবেন সবাই আপনার দিকে অদ্ভুত ভাবে তাকিয়ে আছে। আপনি ভাববেন কেন আমার দিকে তাকিয়ে আছে!

আসলে আপনার দিকে তাকিয়ে থাকার কারন আপনাকে সেই পার্টির সাথে মানানসই লাগছে না। আমরা সাধারনত ভাবি কোন অনুষ্ঠান মানেই খুন জাঁকজমক পোশাক পরা, আর খুব সাজা। কিন্তু আসলে তা না, এতে নিজেকেই বিব্রত হতে হয়। পার্টিতে পরিপাটি এবং মানানসই পোশাক পরা উচিত এবং কম সাজা উচিত এতে আপনার ব্যক্তিত্ব ফুটে উঠবে। চলুন জেনে নেই একটা পার্টিতে কি রকম সাজ দেওয়া উচিত।

কেমন পোশাক নির্বাচন করবেন

বিয়ে বা কোন অফিসের পার্টি সব অনুষ্ঠানে পরিপাটি থাকার চেষ্টা করতে হবে। যেহেতু আমাদের দেশের বেশির ভাগ সময় গরম থাকে তাই পোশাক নির্বাচন করা উচিত এমন ভাবে যা পরে আপনি কমফোর্ট ফিল করবেন। যা পরলে আপনার অস্থির লাগবে না। এমন পোশাক বাছাই করবেন না, যা পরে আপনি বিব্রত হন বা সামলাতে পারবেন না, তা কোন অনুষ্ঠানের জন্যই বাছাই করবেন না। এতে আপনি অনুষ্ঠানে কোন মজাই করতে পারবেন না বরং পোশাক সামলাতেই সময় যাবে।

গহনা বাছাই

পার্টিতে যদি আপনি শাড়ি পরেন তাহলে শাড়ির সাথে বেশি গহনা পরবেন না। শাড়ির সাথে সবসময় হয় গলায় পরবেন আর নয়ত কানে পরবেন। কিন্তু বেশি গহনা যদি পরেন তাহলে খারাপ লাগার সম্ভাবনাই বেশি, অনেক ক্ষেত্রেই শাড়ি বা অন্য কোন পোশাকের সাথে বেশি মাত্রার গহনা পরা ভালোলাগে না।

পোশাকের রঙ বাছাই

পোশাকের রঙ বাছাই করা খুব গুরুত্বপূর্ন একটি কাজ। কারন আপনি যদি টকটকে কোন রং পড়ে যান তাহলে সে রং চোখে লাগে বেশি। পার্টিতে হালকা রঙের কাপড় পরুন, কম কাজের কাপড় পরুন এবং পরিপাটি ভাবে পরুন, দেখবেন আপনাকে অনেক গোছানো আর পরিপাটি মনে হবে।

যেভাবে সাজ দিবেন

সাজ যতটা কম দেওয়া যায় ততটাই ভালো লাগে, স্নিগ্ধ লাগে। হালকা মেকাপ নিন, চোখে কাজল দিন সাথে আইলাইনার দিয়ে নিন, হালকা ব্লাশন ব্যবহার করুন । লিপস্টিক ব্যবহার করুন আপনার পছন্দের রঙের। চেষ্টা করবেন আরামদায়ক কাপড় পড়তে নয়ত পার্টির মজাটাই আপনার নষ্ট হবে।