বুক ব্যথার কারণ জেনে নিন ও সর্তক থাকুন

প্রকাশিত ২৪ মার্চ, ২০১৮ | আপডেট: ১৮ এপ্রিল, ২০২১

বুক ব্যথা একটি অস্বস্তিদায়ক ঘটনা যা গলা এবং উপরের পেটের মধ্যে দেহের সম্মুখে যে কোন স্থানে অনুভব হয়। বুক ব্যথা আছে এমন বহু লোক হার্ট অ্যাটাকের ভয় করে। বুক ব্যথার অনেক সম্ভাব্য কারন আছে। কিছু কারন স্বাস্থ্যের জন্য বিপদজনক নয়। তবে কিছু কিছু কারন গুরুতর এবং কিছু ক্ষেত্রে আশংকাজনক। 

বুক ব্যাথার কারণ

হৃৎপিন্ড বা রক্তনালীর সমস্যা বুক ব্যথার কারন হতে পারে:

অ্যানজাইনা বা হার্ট অ্যাটাক  

সবচেয়ে পরিচিত লক্ষণ। বুক ভেতর টানটান ও ভারী চাপের মতো অনুভূত হতে পারে। ব্যথা বাহু, কাঁধ, চোয়াল বা পিঠে ছড়িয়ে পড়তে পারে। অধিক ধারনক্ষমতাসম্পন্ন রক্তনালী যা রক্তকে হৃৎপিন্ড থেকে দেহের দিকে নেয় তা বুকে এবং পিঠের উপরে হঠাৎ ও তীব্র ব্যথা সৃষ্টি করে। স্যাক বা স্থলীর ফোলা যা হৃৎপিন্ডকে (pericarditis) বেষ্টন করে থাকে তা বুকের কেন্দ্রাংশে ব্যথা ঘটায়। 

ফুসফুসের সমস্যা থেকে বুক ব্যথা

ফুসফুসে রক্ত জমাট যাকে বলা যায় পালমোনারী এমবোলিজম(pulmonary embolism)। আকস্মিক ফুসফুসের কাজের ব্যর্থতা যাকে বলা যায় নিউমোথোরাক্স(pneumothorax)। এর জন্যে প্লুয়রাল ক্যাভিটির মধ্যে বায়ুর অস্বাভাবিক উপস্থিতি দেখা দেয়।

নিউমোনিয়া হঠাৎ বুক ব্যথা সৃষ্টি করে। যখন কেউ গভীর শ্বাস নেয় বা কাশি দিয়ে থাকে ব্যথা তখন আরো খারাপ হতে থাকে। 

ফুসফুসের চারদিকে দেয়াল প্রসারিত হয়ে বুক ব্যথা সৃষ্টি করতে পারে যা সচারাচর হঠাৎ অনুভব হয়। যখন কেউ গভীর শ্বাস নেয় বা কাশি দিয়ে থাকে তখন ব্যথা আরও তীব্র হয়। 

অন্যান্য কারণের মধ্যে আছে প্যানিক অ্যাটাক যা প্রায় দ্রুত শ্বাস-প্রশ্বাসের সাথে ঘটে। কস্টোকানড্রাইটিস ও শিংগলস, এটি এক পাশে হঠাৎ ব্যথা সৃষ্টি করে। 

সাবধানতা 

বুক ব্যথার বেশির ভাগ কারনের জন্যে বাসায় নিজের চিকিৎসার বদলে ডাক্তার দ্বারা পরীক্ষা করা সবচেয়ে উত্তম। 

এজন্য একজন ভালো Cardiologist(MD) দেখানো উচিত। কোন হৃৎরোগ থাকলে তা প্রতিরোধ করা সবচেয়ে ভালো উপায়। রক্ত চাপ, ডায়াবেটিস ও কোলেস্টেরল লেভেল নিয়ন্ত্রনে রাখা, স্বাস্থ্যকর খাবার, নিরাময় ওজন, নিয়মিত ব্যায়াম হৃৎরোগ পরিহারে সাহায্য করতে পারে।

মো: ফারুক হোসাইন